২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ।৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ।সোমবার

প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত, প্রথম পুরস্কার ০২১৮৪০৭

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

১০০ টাকা মূল্যমানের প্রাইজবন্ডের ১০৪তম ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার (১ আগস্ট) ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার অফিসের সম্মেলন কক্ষে অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে এ ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

একক সাধারণ পদ্ধতিতে (অর্থাৎ প্রত্যেক সিরিজের জন্য একই নম্বর) এই ড্র পরিচালিত হয়। ড্র-তে সব সিরিজের ০২১৮৪০৭ নম্বর প্রথম ও ০৫৫১৯৮৫ নম্বর দ্বিতীয় পুরস্কার পেয়েছে।

জয়ী হিসেবে প্রথম পুরস্কার প্রত্যেকে ছয় লাখ ও দ্বিতীয় পুরস্কার তিন লাখ ২৫ হাজার টাকা করে পাবেন।

বন্ডের প্রথম পুরস্কারের জন্য ঘোষিত সংখ্যার প্রতিটি সিরিজের সেই সংখ্যার বন্ড প্রথম পুরস্কারের যোগ্য বলে বিবেচিত হয়। একইভাবে অন্য পুরস্কারগুলোও দেয়া হয়।

এবারের ড্রয়ে তৃতীয় পুরস্কার হলো এক লাখ টাকা। এই পুরস্কারের বিজয়ী নম্বর দুটি হলো যথাক্রমে- ০৩৮৪৪৫৪ এবং ০৯২৪১৩১। এছাড়া চতুর্থ পুরস্কার ৫০ হাজার টাকার বিজয়ী নম্বর দুটি হলো- ০২৭৬০৫৮ ও ০৯৫৫৮৪৮।

এদিকে পঞ্চম পুরস্কার বিজয়ী ৪০ জন ১০ হাজার টাকা করে পাবেন।

এবারের ড্রতে ০০০০০০১ থেকে ১০০০০০০ ক্রম সংখ্যার অন্তর্ভুক্ত প্রাইজবন্ডসমূহ থেকে ৬৫টি সিরিজের ৪৬টি সাধারণ সংখ্যার মোট দুই হাজার ৯৯০টি পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে।

এর মধ্যে ছয় লাখ টাকা প্রতি সিরিজের একজন করে পাবেন মোট ৬৫ জন, তিন লাখ ২৫ হাজার টাকা পাবেন ৬৫ জন, এক লাখ টাকা করে পাবেন ১৩০ জন, ৫০ হাজার টাকা করে পাবেন ১৩০ জন ও ১০ হাজার টাকা করে পাবেন দুই হাজার ৬০০ জন।

১০ হাজার টাকা বিজয়ী ৪০টি পুরস্কারের সব সিরিজের নম্বরগুলো হলো- ০০০৪৮৮৩, ০০১৪৪৫৭, ০০৩৫৮০৭, ০০৮০২১৭, ০১০৮৬১৮, ০১৩৫৩৯৬, ০১৬২৪২৬, ০১৬২৭০৬, ০১৬৪৮৪৪, ০২১৮২৯৮, ০২৫৯৮৫৮, ০২৯৩৪৩৪, ০২৯৩৯৩৮, ০২৯৮৩৪২, ০৩৭২৯৫৬, ০৪২১৩৬৭, ০৪৬৮২৪৬, ০৪৮২২৪৬, ০৪৯৫১৫১, ০৫৩২৭৬১, ০৫৪৭৯২২, ০৬২৪৭০৮, ০৬৪৮৯৯৮, ০৬৫৮৪৮৪, ০৭০৪৯৩৭, ০৭০৫৯৬, ০৭৯৫১২৩, ০৮০৭৬৯৫, ০৮৩৭৬২১, ০৮৫৩৬৮৪, ০৮৬০৬৯৬, ০৮৬৭৬৮৬, ০৮৯৮৮৮৬, ০৯৩০২৯৯, ০৯৩০২৮৬, ০৯৫৫৭১২, ০৯৬৮৫৮৭, ০৯৭৭২৬৭, ০৯৮৬৪৪৪।

প্রতি তিন মাস পর পর ওই মাসের শেষ কর্মদিবসে প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত হয়।

এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে সেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর নির্ঘুম রাত কাটছে এলাকাবাসীর

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ১ মাসে ১৬ টি ছাগল চুরি
পর থেকে চোর আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটচ্ছে গ্রামের ছাগল মালিকরা। মইদুল ইসলামের ২ টি ছাগল চুরি হয়েছে। এর ধারাবাহিক এই চুরির ঘটনার পর থেকে গ্রামজুড়ে চোর আতঙ্ক
বিরাজ করছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কোটচাঁদপুর উপজেলার পাঁচলিয়া গ্রাম থেকে গত ১মাসে ৯ বাড়ি থেকে ১৬ টি ছাগল চুরির ঘটনা ঘটেছে। পল্লী চিকিৎসক আব্দুল আলিমের ১টি, তহিদুল ইসলামের ১টি, আশরাফুল ইসলামের ৩টি, সাইদুল ইসলামের
১টি, জহির হোসেনের ১টি, দুরুদ মন্ডলের ১টি, তসলেম উদ্দিনের ২টি, ও আবু কালামের ২টি রয়েছে। চোরেরা ছাগল মেরে রেখে যায় আরও ১টি।
মইদুল ইসলাম বলেন, গত ১০ বছর ধরে আমি পঙ্গু হয়ে ঘরে পড়ে আছি। মাঠে অল্প একটু জমি আছে, তা থেকে খাবার ধানটা কোন রকম আসে। বাজার আর অন্যান ব্যয়ভার চলতো
আমার ছাগল বিক্রি করে। ছাগল ২টি পেয়েছিলাম আমি ছাগল পোষানি থেকে। তাও নিয়ে গেল চোরেরা। তিনি বলেন,
৩ছেলে মেয়ে আর স্ত্রী নিয়ে আমার সংসার। সংসারের আয় করি আমি একাই। এদিকে একের পর এক ছাগল চুরির ঘটনায় নির্ঘুম রাত কাটছে ওই গ্রামের ছাগল মালিক লালন খন্দকার ও মমিনুর রহমান। তারা বলেন, আমরা দীর্ঘদিন ধরে
ছাগল পালন করে আসছি। এমন সমস্যা হয়নি কোনদিন
প্রায় দিন না ঘুমিয়ে রাত কাটছে এলাকাবাসীর। এ ব্যাপারে দোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল জলিল বিশ্বাস বলেন, চুরির ঘটনা ঘটেছে আমি জানি। বিষয়টি উপজেলা আইন শৃঙ্খলা সভায় তোলা হয়েছে। তবে আজ পর্যন্ত কোনো
ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। কোটচাঁদপুরের লক্ষ্মীপুর পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক ( এসআই) মিজানুর রহমান বলেন, চায়ের দোকানে গল্প শুনেছি ১/২ টা ছাগল চুরি হয়েছে। এই ব্যাপারে আজ পর্যন্ত কেউ কোন অভিযোগ ও করেনি

ঝিনাইদহের৷কোটচাদপুর ১ মাসে ১৬ টি ছাগল চুরি